এরই মধ্যে দিল্লীর বড় দলের হয়ে একটি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ খেলে ফেলেছেন ব্যাটসম্যান থারেজা। সে ম্যাচে ফিফটিও করেছিলেন তিনি। অন্যদিকে ইশান্ত শ’র্মা অনুপস্থিত থাকায় পেসার কুলদ্বীপ পাঞ্জাবের বিপক্ষে দিল্লীর পরবর্তী ম্যাচে মাঠে নামার অপেক্ষায় ছিলেন।কিন্তু অনাকা’ঙ্ক্ষি’ত ঘটনায় এখন দুজনকেই পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে বাড়িতে, তাদের জন্য অপেক্ষা করছে বড় নিষে’ধা’জ্ঞা।

তবে যৌ’ন কে’লে’ঙ্কা’রির বিষয় হলেও, হোটেল কর্তৃপক্ষ কোনো মা’মলা বা থা’নায় অ’ভিযোগ করেনি। পরিস্থিতি সামাল দিতে ডিডিসিএ এর পরিচালক সঞ্জয় ভর্দোয়াজ চলে গিয়েছে কলকাতায়।কলকাতায় টিম হোটেলে নারী কর্মীদের সঙ্গে দু’র্ব্যবহার ও যৌ’ন হে’ন’স্থার অ’ভিযোগে

তাৎক্ষণিকভাবে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে ভারতের দিল্লী অনূর্ধ্ব-২৩ দলের দুই ক্রিকেটার কুলদ্বীপ যাদব ও লক্ষয় থারেজাকে। দিল্লি এবং ডিস্ট্রিক্স ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (ডিডিসিএ) সিকে নাইড়ু ট্রফিতে বেঙ্গলের বিপক্ষে ম্যাচের ঠিক আগে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ডিডিসিএ এর এক কর্মকর্তা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে বলেন, ‘সঞ্জয় ভর্দোয়াজ কলকাতা চলে গেছে। সে দুই ছেলে (কুলদ্বীপ ও লক্ষয়) বেঙ্গলের বিপক্ষে ম্যাচে খেলছে না। দলের নিয়মকানুন ভ’ঙ্গ করায় তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। আমরা শুনেছি যে, অ’ভিযুক্ত দুই ছেলে হোটেলের নারী ক’র্মীদের কক্ষের দরজায় নক করেছে বেশ কয়েকবার।

যা কি না সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়েছে।এদিকে ইশান্ত না থাকায় রঞ্জি ট্রফিতে দিল্লীর হয়ে পরবর্তী ম্যাচটি খেলার কথা ছিলো কুলদ্বীপ যাদবের। কিন্তু বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়ায় এখন তার খেলার সম্ভাবনা ক্ষী’ণ। ডিডিসিএ’র সিদ্ধান্তের ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী ম্যাচের একাদশ সাজানো হবে বলে জানান দিল্লীর এক নির্বাচক।

তার ভাষ্য, ‘যেহেতু ইশান্ত নেই এবং পবন সুয়ালও ফর্মে নেই, তাই সিমারজিতকে সঙ্গ দেয়ার জন্য কুলদ্বীপকে আমাদের খুব দরকার ছিলো। এখন আমাদের দেখতে হবে, দুই ছেলের বিরুদ্ধে ডিডিসিএ কোনো সিদ্ধান্ত নেয় কি না।

তিনি আরও বলেন, ‘সৌভাগ্যবশত কোনো পুলিশ কেস হয়নি এ ব্যাপারে। তবে দিল্লীর পক্ষ থেকে হোটেল কর্তৃপক্ষের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here