মাঝরাতেই নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে একটি বিয়ের কার্ড পোস্ট করে শোরগোল ফেলে দিয়েছেন টলিউড সুপারস্টার তথা সাংসদ দেব। পোস্ট দেখে কমবেশি অনেকেই ভাবতে শুরু করে দিয়েছেন রুক্মিণী মৈত্রের সঙ্গে দেব তাহলে বিয়েটা এবছরই সেরে ফেলছেন! বিয়েটা ঠিক কবে? এমনই নানান প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছিল সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।তবে আসল সত্যিটা কী জানেন?

বিয়েটা হচ্ছে ঠিকই, তবে দেব-রুক্মিণীর নয়, পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও শকুন্তলা বড়ুয়ার। কী শুনে চোখ কপালে উঠলো তো? দাঁড়ান, তাহলে পুরো খবরটা পড়ুন, বিয়েটা এক্কেবারেই বাস্তবে নয়, হচ্ছে রিল লাইফে। সৌজন্যে Zee বাংলার রিয়েলিটি শো খ্যাত পরিচালক অভিজিৎ সেনের প্রথম ছবি ‘টনিক’।
পরাণ-শকুন্তলা
সেই ছবিতেই সাতপাকে বাঁধা পড়তে দেখা যাবে পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও শকুন্তলা বড়ুয়াকে। এবার নিশ্চয় বুঝতে পারছেন, ‘টনিক’-এর প্রমোশনেই মাঝরাতে এমন কাণ্ডটা ঘটিয়েছিলেন দেব। তবে সকলে যখন দেব-রুক্মিণীর বিয়ে নিয়ে আলোচনায় ব্যস্ত, তখন তাঁদের সেই ভুলটাও দেবই ভাঙলেন।

আরো একটি পোস্টে পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও শকুন্তলা বড়ুয়ার মালাবদলের ছবি পোস্ট করে দেব লিখেছেন, ”আমার কাকার শুভ বিবাহ অনুষ্ঠিত হবে আগামী মে মাসে , সেই উপলক্ষে আমার পক্ষ থেকে আপনাদের সকলের সপরিবারে আমন্ত্রণ রইলো, আপনাদের ভালোবাসা এবং আশীর্বাদ যেন সবসময় থাকে আমার কাকা এবং কাকিমার সাথে। ইতি
টনিক”। বিয়ের আললে সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেব।

এবার বুঝলেন তো আসল রহস্যটা? প্রসঙ্গত, টনিক ছবির মাধ্যমেই টলিউডে ছবি পরিচালনায় পা রাখছেন Zee বাংলার ‘সা রে গা মা পা’ খ্যত পরিচালক অভিজিৎ সেন। বেশকিছুদিন আগে কালিম্পঙে হয়েছে ‘টনিক’-এর শ্যুটিং। যে ছবির প্রযোজনা করছে অতনু রায়চৌধুরী ও দেবের প্রযোজনা সংস্থা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here