ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ পরিবেশ নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাস’চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, সরকার নিরপেক্ষ পরিবেশ সৃষ্টি না করে উল্টো নির্বাচনে আ’তঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর হাইকোর্ট মাজার প্রাঙ্গণে ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেনের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।নির্বাচন কমিশনের ব্যর্থতার সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, সিটি ভোটে নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষতার কোনো আলামত দেখাতে পারেনি। তাদের সেই যোগ্যতাও নেই।

আবারও ইভিএমের বি’রোধিতা করে বিএনপি মহাস’চিব বলেন, নির্বাচন কমিশন সরকারি দলকে সাহায্য করার জন্যই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে এসেছে। নিজেদের অযোগ্যতা ঢাকার জন্য ইভিএম এনেছে। আমরা বলেছি, প্রয়োজনে নির্বাচন পিছিয়ে দিয়ে ব্যালটের মাধ্যমে নির্বাচন পরিচালনা করা হোক।’

বিএনপির প্রার্থীদের ওপর হা’মলার অ’ভিযোগ করে তিনি বলেন, ২২ জানুয়ারি উত্তর সিটিতে আমাদের কাউন্সিলর এবং ধানের শীষের কর্মীদের আ’হত ও নি’র্যাতন করা হয়েছে। কাউন্সিলর প্রার্থীকে তুলে নেয়া হয়েছে।

মেয়রপ্রার্থী ইশরাককে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাস’চিব বলেন, আজকে ঢাকাবাসীর প্রতি আমার আবেদন থাকবে তরুণ নেতা ইশরাক হোসেনকে ধানের শীষে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি ত্বরান্বিত করুন।

ঢাকাবাসীকে ইশরাকের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আজকে ঢাকাবাসী তাদেরই ভোট দিয়ে মেয়র নির্বাচন করবেন— যারা ঢাকার উন্নয়ন ও ঢাকাকে পরিবর্তনের জন্য কাজ করবেন। তাই আমরা মনে করি, এর মধ্যেই ইশরাক হোসেন ঢাকাসহ সারা দেশে তার মেধা ও সাহসী বক্তব্য এবং সাহসী পদক্ষেপে প্রমাণ করেছেন যে, তিনিই একমাত্র নেতা যিনি আগামীতে ঢাকাকে নেতৃত্ব দিতে পারেন মেয়র হিসেবে।এ সময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, যুগ্ম মহাস’চিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, হাবিব-উন নবী খান সোহেল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here